July 10, 2020, 4:59 pm

বিসিএস না হলে কি পরিশ্রম বৃথা

Spread the love

একজীবনে অনেক চাকরি পরীক্ষায় অংশ নিতে হয় চাকরিপ্রত্যাশীদের। দেশে বিসিএসের পরীক্ষা অন্যতম, বলতে গেলে সেরার সেরা। বিসিএস ক্যাডার হওয়ার স্বপ্ন দেখেন না, এমন বৈরাগ্যধারীও যেন বিরল! যেমন মানসিক লড়াই, তেমনি শারীরিক লড়াই! তীব্র লড়াই সব প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে। নিজের বয়সের বিরুদ্ধে, নিজের পরিবার ও সমাজের বিরুদ্ধে, অভাবের বিরুদ্ধে, বিরুদ্ধবাদীদের বিরুদ্ধে, সময়ের বিরুদ্ধে, এমনকি স্বয়ং ভাগ্যেরও বিরুদ্ধে।

অসম্ভব সব প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়েই হতে হয় একজন বিসিএস ক্যাডার। সময় শেষে তাই একজন বিসিএস ক্যাডার হয়ে যায় মহাকাব্যিক চরিত্র।

কিন্তু এটা অনেক পরের কাহিনি। সর্বশেষ কাহিনি। তবে এরও আগে রয়ে গেছে আরও অনেক না জানা কাহিনি, অনেক না জানা গল্প। একজন শিক্ষার্থীর বিসিএস–ভাবনা শুরু হয় ইন্টারমিডিয়েট থেকে। কোনো কোনো শিক্ষার্থীর ভাবনা শুরু হয় মাধ্যমিক পর্যায় থেকে। এমনকি কোনো কোনো শিক্ষার্থীর বিসিএস–ভাবনা শুরু হয় প্রাথমিক থেকেই, বিসিএস ক্যাডার হওয়ার ভাবনা মনে পুষে রাখে মোটামুটি দীর্ঘ ৮ থেকে ১০ বছর বা তদূর্ধ্ব। যেহেতু এ দীর্ঘ সময় ধরে একজন শিক্ষার্থী এই স্বপ্ন মনের মধ্যে লালন করেন, তাঁকে এ দীর্ঘ সময় ধরে মানসিক প্রস্তুতি নিতে হয়। শুধু মানসিক প্রস্তুতিই নয়, বরং মানসিক লড়াইও তাঁকে চালিয়ে যেতে হয় এ দীর্ঘ সময়। শরীরে ছোট হয়েও তাঁকে দূরদৃষ্টি রাখতে হয় তাঁর ভবিষ্যতের বড় দেহের ওপর। বয়সে অল্প হয়েও তাঁকে দূরদৃষ্টি রাখতে হয় তাঁর দীর্ঘকাল পরের ২৭ থেকে ৩০ বছরের ওপর। এ এক অচিন্তনীয় ব্যাপার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
Translate »